শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:০১ অপরাহ্ন

বঙ্গবন্ধুর শৈশবের স্মৃতিধন্য যে বাড়ি

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১০৯৯ Time View

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার ছোট্ট খোকা। অজপাড়া গাঁয়ের গণ্ডি পেরিয়ে যিনি হয়ে উঠেছিলেন বাঙালির প্রিয় নেতা, মুক্তির আলোকবর্তিকা, সাড়ে সাত কোটি মানুষের মহানায়ক।

সেই মহানায়কের শৈশব-কৈশোর কেমন ছিল? কেমন ছিল তার বাল্যকালের স্কুল, খেলার মাঠ? কেমন ছিল বাড়ি? কোন বাড়িতে মহানায়কের জন্ম ও বেড়ে ওঠা? সেই গল্পই জানিয়েছেন মহানায়ককে কাছ থেকে দেখা টুঙ্গিপাড়ায় তার প্রতিবেশী ও স্বজনেরা।

টুঙ্গিপাড়ার এ বাড়ির আঙিনায় ছোটবেলায় বঙ্গবন্ধু তার খেলার সঙ্গীদের নিয়ে খেলেছেন। গ্রামের লোকদের সঙ্গে তিনি গোল্লাছুট, বুড়ির চি ইত্যাদি খেলেছেন। এমন বহু স্মৃতি রয়েছে বঙ্গবন্ধুর এ বাড়ির আঙিনায়

বহু বছর আগে শেখ বোরহান উদ্দিন নামে এক ধার্মিক পুরুষ টুঙ্গিপাড়ার মধুমতী নদীর তীরে শেখ বংশের গোড়াপত্তন করেন। তারই বংশধর জমিদার শেখ কুদরত উল্লাহ মোগল আমলে একটি বাড়ি গড়ে তোলেন। ইতিহাস আর ঐতিহ্য মাথায় নিয়ে কালের সাক্ষী হয়ে সেই বাড়ি আজও দাঁড়িয়ে রয়েছে।

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার এই বাড়ির একটি ঘরেই ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। শৈশব থেকে শুরু করে জীবনের অনেকটা সময় তিনি কাটিয়েছেন এই বাড়িতে। বাবা শেখ লুৎফর রহমান ও মা শেখ সায়েরা খাতুন আদর করে ডাকতেন ‘খোকা’ বলে।

বঙ্গবন্ধু তার ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইয়ে লিখেছেন, ‘আমার জন্ম হয় এই টুঙ্গিপাড়ায় শেখ বংশে। শেখ বোরহান উদ্দিন নামের এক ধার্মিক পুরুষ এই বংশের গোড়াপত্তন করেছেন বহুদিন পূর্বে। শেখ বংশের যে একদিন সুদিন ছিল তার প্রমাণস্বরূপ মোগল আমলের ছোট ছোট ইটের দ্বারা তৈরি চকমিলান দালানগুলি আজও আমাদের বাড়ির শ্রীবৃদ্ধি করে আছে।

বাড়ির চার ভিটায় চারটা দালান। বাড়ির ভিতরে প্রবেশের একটামাত্র দরজা, যা আমরাও ছোট সময় দেখেছি বিরাট একটা কাঠের কপাট দিয়ে বন্ধ করা যেত। একটা দালানে আমার এক দাদা থাকতেন। এক দালানে আমার এক মামা আজও কোনোমতে দিন কাটাচ্ছে। আর একটা দালান ভেঙে পড়েছে। যেখানে বিষাক্ত সর্পকুল দয়া করে আশ্রয় নিয়েছে। এই সকল দালান চুনকাম করার ক্ষমতা আজ তাদের অনেকেরই নাই। এ বংশের অনেকেই এখন এই বাড়ির চারপাশে টিনের ঘরে বাস করেন। আমি এ টিনের ঘরের এক ঘরেই জম্মগ্রহণ করি। আমাদের বাড়ির দালানগুলো দুইশ’ বছরের বেশি হবে।’

Please Share This Post in Your Social Media

One response to “বঙ্গবন্ধুর শৈশবের স্মৃতিধন্য যে বাড়ি”

  1. Hi, this is a comment.
    To get started with moderating, editing, and deleting comments, please visit the Comments screen in the dashboard.
    Commenter avatars come from Gravatar.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

Advertise

Ads

Address

Office : 2nd Floor, Panthopath, Dhaka.
Mobile : 01712-633600,
Email : info@amratungiparabashi.org
Author: Ashikur Rahman © All rights reserved 2022. Amra Tungipara Bashi

Design & Developed By: RTD IT ZONE